স্ত্রীসহ রাঙামাটির পিএসটিএস র পুলিশ পরিদর্শকের বিরুদ্ধে কুষ্টিয়ায় দুদকের মামলা

এনামুল হক রাসেল এনামুল হক রাসেল

সম্পাদক, দ্য বিডি রিপোর্ট ২৪ ডটকম

প্রকাশিত: ১২:৪৫ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৯, ২০২১

নিজস্ব প্রতিনিধি,কুষ্টিয়া: দূর্নীতি ও ঘুষ বানিজ্যে জ্ঞাত আয় বহির্ভুত প্রায় সাড়ে ৩ কোটি টাকার সম্পদ অর্জনের দায়ে স্ত্রীসহ এক পুলিশ পরিদর্শকের বিরুদ্ধে দুদক আইনের ২৬(২), ২৭(১) ও মানি লন্ডারিং আইনের ৪(২ ও ৩) ধারায় মামলা করেছে দুদক। মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৪টায় কুষ্টিয়া জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক তহিদুল ইসলামের আদালতে এই মামলা দায়ের করেন দুর্নীতি দমন কমিশন সমন্বিত জেলা কার্যালয় কুষ্টিয়ার উপ সহকারী পরিচালক নাছরুল্লাহ হোসাইন।

 

 

 

মামলায় অভিযুক্ত হলেন- গাংনী থানার সাবেক ওসি এবং বর্তমানে রাঙামাটি জেলার পুলিশ বিশেষ প্রশিক্ষন কেন্দ্র (পিএসটিএস)এ কর্মরত পুলিশ পরিদর্শক হরেন্দ্রনাথ সরকার(৫৩) এবং তার স্ত্রী কৃষ্ণা রানী অধিকারী।

 

 

 

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ২০০৬ সালের ৯জানুয়ারী থেকে ২০১৯সালের ২১এপ্রিল সময়কালের মধ্যে বিভিন্ন সময় পুলিশ পরিদর্শক হরেন্দ্রনাথ সরকার আইন বহির্ভুত ও অবৈধ পন্থায় ২কোটি ৮৭লক্ষ ৫৭হাজার ৭শ ৮৪ টাকা এবং তার স্ত্রী কৃষ্ণা রানী অধিকারী ৩২লক্ষ ৮০হাজার ৭শ ৪ টাকার জ্ঞাত আয় বহির্ভুত সম্পদ অর্জন করেছেন। দুর্নীতি দমন কমিশন সমন্বিত জেলা কার্যালয় কুষ্টিয়ার তদন্তকারী দলের তদন্তে প্রাথমিক সত্যতা নিশ্চিত হন। এতে দুদক আইনের ২৬(২), ২৭(১) ও মানি লন্ডারিং আইনের ৪(২ ও ৩) ধারায় সংঘটিত অপরাধ আমলযোগ্য মনে করায় দুর্নীতি দমন কমিশন সমন্বিত জেলা কার্যালয় কুষ্টিয়ার উপ সহকারী পরিচালক নাছরুল্লাহ হোসাইন বাদি হয়ে মামলাটি দায়ের করেন বলে নিশ্চিত করেন দুদক কুষ্টিয়ার লিগ্যাল অফিসার বাসেদ আলী।

 

 

 

এ বিষয়ে গাংনী থানার সাবেক ওসি এবং বর্তমানে রাঙামাটি জেলার পুলিশ বিশেষ প্রশিক্ষন কেন্দ্র (পিএসটিএস)এ কর্মরত পুলিশ পরিদর্শক হরেন্দ্রনাথ সরকারের সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি জানান, হ্যাঁ এর আগে দুদক একটা তদন্ত করেছিলো। তবে মামলা হয়েছে সেটা আমার জানা নাই। প্লিজ দয়া করে বিষয়টি ওইসব নিউজ টিউজে আইনেন না। উনারা তো আমার ফাইলপত্রও ঠিক ভাবে দেখে নাই; আমাকে আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগও দেই নাই। উনারা আন্দাজে কিভাবে কি করলেন আমি বুঝলাম না।

পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।