সারাদেশে করোনাভাইরাসে মৃত্যুর সংখ্যা ১৭ জন, আক্রান্ত ১৬৪ জন

এনামুল হক রাসেল এনামুল হক রাসেল

,সম্পাদক, দ্য বিডি রিপোর্ট

প্রকাশিত: ৫:৪৫ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ৭, ২০২০

দ্য বিডি রিপোর্ট ডেস্ক: গত ২৪ ঘন্টায় করোনাভাইরাসে দেশে আরও ৫ জন মৃত্যুবরণ করেছেন। এ নিয়ে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৭ জনে। এ সময়ে দেশে আরও ৪১ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে দেশে মোট আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা দাঁড়ালো ১৬৪ জনে।

রাজধানীর মহাখালীতে স্বাস্থ্য অধিদফতরে নিয়মিত অনলাইন ব্রিফিংয়ে রোগতত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের(আইইডিসিআর) পরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা এ তথ্য জানান। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডা. আবুল কালাম আজাদ ও পরিচালক (এমআইএস) ডা. মো. হাবিবুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

গত ২৪ ঘন্টায় সারাদেশের ৭৯২ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হয়েছে উল্লেখ করে ডা. ফ্লোরা জানান, করোনায় নতুন আক্রান্ত ৪১ জনের মধ্যে ২০ জন ঢাকার বিভিন্ন এলাকার এবং ১৫ জন নারায়ণগঞ্জের। বাকিদের মধ্যে কুমিল্লার ১ জন, কেরানীগঞ্জের ১ জন ও চট্টগ্রামের ১ জন রয়েছেন। এদের মধ্যে ২৮ জন পুরুষ ও ১৩ জন নারী। তাদের বয়স ১০ বছরের নীচে ১ জন, ১১ থেকে ২০ বছরের ৪ জন, ২১ থেকে ৩০ বছরের ১০ জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের ৫ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের ৯ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের ৭ জন এবং ষাটোর্ধ ৫ জন।


তিনি জানান, গত ২৪ ঘন্টায় মৃত্যুবরণকারী ৫ জনের মধ্যে ৪ জন পুরুষ ও ১ জন নারী। এদের মধ্যে ঢাকার ২ জন এবং ঢাকার বাইরের ৩ জন। তাদের বয়স ৪১ থেকে ৫০ বছরের ১ জন, ৫০ থেকে ৬০ বছরের ২ জন এবং ষাটোর্ধ ২ জন।


ডা. আবুল কালাম আজাদ জানান, ‘অন্যান্য দিন এই অনুষ্ঠানকে আইইডিসিআরের অনলাইন প্রেস ব্রিফিং বলা হলেও এটিকে এখন থেকে দৈনন্দিন হেলথ বুলেটিন বলবো আমরা। এখন থেকে আর গণমাধ্যমকর্মীদের কাছ থেকে কোনো প্রশ্ন গ্রহণ বা উত্তর দেয়া হবে না।’
তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় ৬০৬ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে এবং ৩২ জনকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। বর্তমানে সারাদেশে ১০ হাজার ৩১৬ জন কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন।

মহাপরিচালক জানান, করোনা চিকিৎসায় সারাদেশে হাসপাতালগুলোতে আইসোলেশন বেড রয়েছে ৭ হাজার ৬৯৩টি, আইসিইউ বেড রয়েছে ১১২টি এবং ডায়ালাইসিস বেড আছে ৪০টি। ঢাকা মহানগরীতে আইসোলেশন বেড রয়েছে ১ হাজার ৫৫০টি এবং আইসিইউ ৭৯টি। ঢাকার বাইরে আইসোলেশন বেড আছে ৬ হাজার ১৪৩টি। ঢাকার বাইরে ময়মনসিংহে ২৬টি, খুলনায় ৫টি ও সিলেটে ২টি আইসিইউ বেড রয়েছে।

করোনা প্রতিরোধে দেশবাসীকে কোয়ারেন্টাইন বিধিমালা কঠোরভাবে মেনে চলার অনুরোধ জানিয়ে তিনি বলেন, ‘করোনা ভাইরাসে প্রতিরোধে সরকার সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। তবে ব্যক্তি পর্যায়ে সতর্ক থাকলে করোনা বিস্তার রোধ করা সম্ভব হবে। আপনার ভাল আপনারই হাতে।’


বৈশ্বিক করোনা পরিস্থিতি সম্পর্কে তিনি বলেন, এ পর্যন্ত বিশ্বের ১২ লাখ ১০ হাজার ৯৫৬ জন আক্রান্ত হয়েছেন। মৃত্যুবরণ করেছেন ৬৭ হাজার ৫৯৪ জন। গত ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ৭৭ হাজার ২শ’ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৪ হাজার ৮১০ জন।
দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার এ পর্যন্ত ৮ হাজার ৮২৮ জন আক্রান্ত হয়েছেন। মৃত্যুবরণ করেছেন ৩৪৪ জন। গত ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ১ হাজার ১২ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৪২ জন।

মহাপরিচালক জানান, স্বাস্থ্য বাতায়ন ও আইইডিসিআর-এর হটলাইন নম্বরে এ পর্যন্ত ১৬ লাখ ১ হাজার ৬৭৭ টি কল এসেছে। গত ২৪ ঘন্টায় ১ লাখ ১৫ হাজার ৯০৪টি কল এসেছে।


তিনি জানান, করোনাভাইরাস চিকিৎসা বিষয়ে এ পর্যন্ত ১৩ হাজার ৩১৬ জন চিকিৎসক অনলাইনে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেছেন। এদের মধ্যে ২ হাজার ২৩৮ জন স্বাস্থ্য বাতায়ন ও আইইডিসিআর-এর হটলাইনগুলোতে জনগণকে চিকিৎসাসেবা ও পরামর্শ দিচ্ছেন।
ডা. আবুল কালাম আজাদ জানান, দেশের বিমানবন্দর, স্থল, নৌ ও সমুদ্রবন্দর দিয়ে বাংলাদেশে আগত ৬ লাখ ৬৮ হাজার ৩৮৬ জনকে স্কিনিং করা হয়েছে।

সুত্র: বাসস

পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।