শৈলকুপায় আওয়ামী লীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম ও সাধারণ সম্পাদকের গাড়ী ভাংচুর

এইচ,এম ইমরান এইচ,এম ইমরান

, স্টাফ রিপোর্টার

প্রকাশিত: ৪:০১ পূর্বাহ্ণ, মে ৩০, ২০২০

স্টাফ রিপোর্টার :
ঝিনাইদহের শৈলকুপায় আওয়ামী লীগের অভ্যন্তরীন বিরোধে তোফাজ্জেল নামের এক নেতাকে কুপিয়ে যখম করা হয়েছে । এদিকে থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা আরিফ রেজা মন্নুর প্রাইভেট কার ভাংচুর করা হয়েছে । পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে শহরে দাঙ্গা পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে ।
স্থানীয়রা জানিয়েছে, শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে শৈলকুপা মহিলা কলেজ রোড দিয়ে বাড়ি ফিরছিল ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি জাহিদুল ইসলামের বড় ভাই আওয়ামীলীগ নেতা তোফাজ্জেল হোসেন । এসময় অতর্কিত হামলার শিকার হন মনোহরপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জেল হোসেন। তাকে কুপিয়ে যখম করা হয়। আহত অবস্থায় তাকে শৈলকুপা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
এদিকে এ ঘটনার পরপরই শৈলকুপা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তফা আরিফ রেজা মন্নুর প্রাইভেট ( ঢাকা মেট্রো গ-৩৫-২৭১৯) কারে হামলার ঘটনা ঘটে। ৯নং মনোহরপুর ইউনিয়ন পরিষদে তার গাড়িটি ছিল। তবে তিনি পরিষদে ছিলেন না। এসময় একটি চায়ের দোকান ও গোলঘর ভাংচুর করা হয়।
এখবর ছড়িয়ে পড়লে মনোহরপুর ইউনিয়নের দামুকদিয়া গ্রামেও সংঘের্ষর ঘটনা ঘটে। সেখানেও আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের মধ্যে ইট ছুড়াছুড়ি ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এসময় উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শিকদার মোশাররফ হোসেনের কর্মী বকুল মোল্লার বাড়ী ভাংচুরসহ বেশ কয়েকজন আহত হয়।
শৈলকুপা উপজেলা আওয়ামী লীগের অভ্যন্তরীন বিরোধে এই হামলা ও পাল্টা হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে কর্মীরা জানিয়েছে।
প্রসঙ্গত, শৈলকুপা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি উপজেলা চেয়ারম্যান শিকদার মোশাররফ হোসেন সোনা ও দলটির সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা আরিফ রেজা মন্নুর মধ্যে দীর্ঘদিন বিরোধ চলে আসছে। উপজেলা নির্বাচনের পর থেকেই আধিপত্য বিস্তার নিয়ে এই বিরোধ।
আওয়ামীলীগ নেতা মোস্তফা আরিফ রেজা মন্নু জানিয়েছেন, তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা চালানো হয়েছে, না পেয়ে গাড়িতে হামলা করে। এছাড়া কে বা কারা তোফাজ্জেল হোসেনের উপর হামলা চালিয়েছে তা তাদের জানা নেই ।
এদিকে শিকদার মোশারফ হোসেনের সমর্থদের দাবি পরিকল্পিতভাবে তাদের নেতা তোফাজ্জেল হোসেন কে কুপিয়ে আহত করেছে মোস্তফা আরিফ রেজা মন্নুর কর্মী-সমর্থকরা।
একের পর এক ক্ষমতাশীন আওয়ামী লীগের এমন অভ্যন্তরীন বিরোধ মেটাতে হিমসিম খেতে হচ্ছে পুলিশকে । শহরে দাঙ্গা পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।