বিয়ে করেছি সত্যি, তবে বাস্তবে নয় : পপি

এনামুল হক রাসেল এনামুল হক রাসেল

,সম্পাদক, দ্য বিডি রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১০:০০ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১৯, ২০২০
পপি ও জায়েদ

বিনোদন প্রতিবেদক: পপি বলেন, ‘কিছু গণমাধ্যমকর্মী আমাকে খুব পছন্দ করেন। তাই তারা আমাকে তাদের পছন্দ মতো পাত্রের সঙ্গে প্রতিনিয়তই বিয়ে দিয়ে যাচ্ছেন। কিন্তু তারা বিবেচনায় রাখেন না – কার সঙ্গে আমাকে বিয়েটা দিচ্ছেন।

 

 

আমি চিত্রনায়িকা হলেও আমার একটা পারিবারিক এবং সামাজিক জীবন আছে। আমাকে সমাজেই বাস করতে হয়। এসব কথা নিয়ে আমাকে নানা জনের কাছে জবাবদিহি করতে হচ্ছে। আমাকে যাদের সঙ্গে বিয়ে দেওয়া হচ্ছে তাদের মধ্যে কেউ কেউ মিথ্যেবাদী, অর্থ আত্মসাৎকারী, নোংরা মনের অধিকারী, চরিত্র বলে যাদের কিছু নেই। মেয়ে হয়ে জন্মেছি। আজ হোক কাল হোক বিয়ে তো আমাকে করতেই হবে। তাই বলে কি যাকে তাকে বিয়ে করব?’

 

 

 

সম্প্রতি পপি ও জায়েদ খানকে নিয়ে বিয়ের গুঞ্জন উঠেছে। বিয়ের প্রমাণ হিসেবে তাদের যুগল কিছু ছবিও ব্যবহার করা হয়েছে।

এ বিষয়ে পপি বলেন, ‘অনলাইন প্রতিবেদনগুলোর সঙ্গে আমাদের যেসব ছবি ব্যবহার করা হয়েছে সেগুলো হলো প্রযোজক পরিচালক সাদ্দামের ‘বিয়ে হলো বাসর হলো না’ ছবির। কোলে বসা ছবিটি রোমান্টিক গান শুরু হওয়ার আগের মুহূর্তের। এই ছবিটির কাজ শুরু করেছিলেন কাজী হায়াত। পরে তিনি ছবিটি ছেড়ে দেন। এই ছবিটিতে জায়েদ খান ছাড়াও আছেন আমান। তার সঙ্গেও আমার অনেক রোমান্টিক দৃশ্য আছে।’

 

তিনি বলেন, ‘এছাড়া আরো কিছু ছবি আছে, যা তোলা হয়েছে একটি ফ্যাশন ম্যাগাজিনের ফটোসেশনে। কথা ছিল ছবিগুলো থেকে বাছাই করে ম্যাগাজিনটির প্রচ্ছদ করা হবে। শেষ পর্যন্ত অবশ্য হয়নি। নিশ্চয়ই আমি বিয়ে করার জন্য ছবিগুলো তুলিনি।’

 

 

পপি বলেন, ‘আমাদের প্রতি ছবিতেই বিয়ে হয়। চলচ্চিত্রের ফর্মুলাতেই আছে – নায়ক-নায়িকার প্রেম হবে, বিরহ আসবে, আবার মিলন হবে ইত্যাদি। আমি এখনও খুলনা আছি। আমাকে নিয়ে লেখা সকল প্রতিবেদনই আমার সংগ্রহে আছে। ফিরে এসে এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে সিদ্ধান্ত নেব।’

পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।