দৌলতপুরে সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত- ১

প্রকাশিত: ১০:৪১ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ২৪, ২০২০

দৌলতপুর প্রতিনিধি : কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার হোগলবাড়িয়া ইউনিয়নের কল্যাণপুর বাজার থেকে চকদিয়াড় গ্রামের যাওয়ার সড়কে বিশু ড্রাইভার এর বাড়ির সামনে ২৪ নভেম্বর মঙ্গলবার সকাল ৯ টার সময় মোটরসাইকেল ও স্টিয়ারিং গাড়ি মুখোমুখি সংঘর্ষে মোটরসাইকেল চালক মরিচা ইউনিয়নের মাঝদিয়াড় মুন্সি পাড়া গ্রামের মুনসাদ মুন্সির ছেলে মামুন নিহত হয়েছে। স্টিয়ারিং গাড়ির হেলপার মসলেমপুর গ্রামের সাদ্দাকের ছেলে শাওন গুরুতর আহত হলে এলাকাবাসী তাকে উদ্ধার করে দৌলতপুর হাসপাতালে ভর্তি করেন।

 

 

 

প্রত্যক্ষদর্শী কল্যাণপুর গ্রামের রনি জানান সকাল ৯ টার দিকে চকদিয়াড় থেকে দু’জন ব্যক্তি মোটরসাইকেলে দ্রুত গতিতে ছুটে আসছিল, ইতিমধ্যে একটি ব্যাটারিচালিত পাখি ভ্যান কে ওভারটেক করে মোটরসাইকেল চালক গতি নিয়ন্ত্রণ করতে না পেরে স্টারিং গাড়ির ভিতরে ঢুকিয়ে দেয়। ইট বোঝায় স্টারিং গাড়ি চালক নিজের গাড়ি নিয়ন্ত্রণ না করতে পেরে মোটরসাইকেল ও মোটরসাইকেল চালককে সহ নিয়ে খাদে পড়ে যায়। স্টারিং গাড়ি চালক সাদিপুর গ্রামের শাকিল, সে ঘটনা বুঝতে পেরে সাথে সাথে দৌঁড়ে পালিয়ে যায়।

 

 

এদিকে এলাকাবাসী ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে জানান, অবৈধ স্টিয়ারিং গাড়ি,ব্যাটারি চালিত পাখি ভ্যান , অটোরিকশা এসব গাড়ির কারণে প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনা ঘটে চলেছে, কারণ গাড়ি-ঘোড়া যারা চালাচ্ছে তাদের কোন ধরনের কোনো কাগজপত্র বা গাড়ির কোনো বৈধতা নাই, তাই সরকার এই সমস্যায় থেকে উত্তরণ করুক। এদিকে নিহতের পরিবার তদন্ত করে সঠিক বিচার দাবী করছেন।

 

 

ইট ভাটা মালিকের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, ইট বিক্রয় করেছি কিন্তু গাড়ি তো আমার না। এ বিষয় দৌলতপুর থানা পুলিশ পরিদর্শক তদন্ত শাহাদাৎ হোসেন জানান,ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে গাড়িচালককে আটকের জন্য পুলিশি অভিযান চলছে, ময়না তদন্ত শেষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।