দৌলতপুরে মাদকের আখড়ায় পুলিশের অভিযান, ভ্রাম্যমান আদালতে ১৮ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা

এনামুল হক রাসেল এনামুল হক রাসেল

সম্পাদক, দ্য বিডি রিপোর্ট ২৪ ডটকম

প্রকাশিত: ১:২০ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২৭, ২০২১

দৌলতপুর প্রতিনিধি : কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার তারাগুনিয়া ফিল্ডপাড়া এলাকার সাবেক এক মেম্বরের ছেলে এলাকার মাদক সম্রাট নামে পরিচিত আজাদ মন্ডলের আখড়ায় পুলিশ ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটের অভিযানে ১৮জন কে মাদক সেবনরত অবস্থায় আটক করে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে সাজা প্রদান করেছেন।

 

 

পুলিশ জানান, সোমবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে উপজোলার তারাগুনিয়া ফিল্ডপাড়া এলাকায় আজাদ মন্ডল এরআখড়ায় দৌলতপুর থানারওসি (তদন্ত) শাহাদাৎ হোসেনের নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালিত হয়। দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তারের ভ্রাম্যমান আদালতে ১৮ জন কে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা প্রদান করা হয়।

 

 

সাজা প্রাপ্তরা হলেন, আখড়ার প্রধান মৃত মোশারফ হোসেনের ছেলে আজাদ মন্ডল (৩৭), মৃত আতাহার আলীর ছেলে সম্রাট (৩২), মনতাজ মন্ডলের ছেলে মনিরউদ্দিন (২৩), সাবউদ্দিনের ছেলে মিনারুল (২২), আসরাফ হোসেনের ছেলে আসিফ (২৫), ফজর মন্ডলের ছেলে আউলাদ (১৯), মোছাদ মন্ডলের ছেলে জনি (২৩), ইয়ারুল সর্দারের ছেলে রাসেল (২৩), ভক্ত মন্ডলেরে ছেলে ভোলামন্ডল (২২), কামরুল জোয়ার্দ্দারের ছেলে সবুজ জোয়ার্দ্দার (১৯), সিরাজ শেখের ছেলে রতন শেখ (১৯), ছিদ্দিক মোল্লার ছেলে লিটন (৩৬), আলমগীরের ছেলে আকাশ (১৮), ছাবদুলের ছেলে রুমন ইসলাম (১৯), ইংরাজ মন্ডলের ছেলে সাগর (২০), জহুরুল ইসলামের ছেলে বিজয় (১৮), নাসির মিয়ার ছেলে ফারুক ইসলাম (২২), দাউদ সরকারের ছেলে টাবু (৩৫) কে সাজা প্রদান করে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

 

 

আজাদ মন্ডলের আখড়াবাড়ী এলাকায় উপস্থিত লোকজনের সাথে কথা বলে জানাযায়, ৩-৪ বছর ধরে মাদক সেবনসহ মাদক বিক্রয় করে আসছেন এই আজাদ।

 

 

দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তার জানান, আজাদ মন্ডলসহ সকল কে মাদক সেবনরত অবস্থাতে পাওয়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে মাদক নিয়ন্ত্রন আইন ২০১৮ সালের ৩৬ এর ৫ ধারায় কারাদন্ড ও অর্থদন্ড প্রান করা হয়েছে।

 

পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।