দুস্থ্যদের জন্য বরাদ্দ ভিজিডির চাল আত্মসাত, কুষ্টিয়ায় ইউপি চেয়ারম্যান কারাগারে

এনামুল হক রাসেল এনামুল হক রাসেল

সম্পাদক, দ্য বিডি রিপোর্ট ২৪ ডটকম

প্রকাশিত: ৯:৪৩ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ২৪, ২০২০
রিফাইয়েতপুর ইউপি চেয়ারম্যান জামিরুল ইসলাম বাবু

মঙ্গলবার দুপুরে কুষ্টিয়ার সিনিয়র জুডিশিয়াল আমলী আদালতের বিচারক এনামুল হকের আদালতে জামিন আবেদন করলে বিজ্ঞ বিচারক জামিন না মঞ্জুর করেন।

 

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি: তৃণমূল পর্যায়ের দুস্থ্য জনগোষ্ঠীর খাদ্য নিরাপত্তায় বরাদ্দ দেয়া ভিজিডি’র চাল আত্মসাতের দায়ে সুবিধা বঞ্চিত এক ভুক্তভোগীর করা মামলায় কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার ৯নং রিফাইয়েতপুর ইউপি চেয়ারম্যান জামিরুল ইসলাম বাবুর জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

 

 

 

মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) দুপুরে কুষ্টিয়ার সিনিয়র জুডিশিয়াল আমলী আদালতের বিচারক এনামুল হকের আদালতে জামিন আবেদন করলে বিজ্ঞ বিচারক জামিন না মঞ্জুর করেন।

 

 

 

এর আগে ভিজিডি কার্ডধারী সুবিধা বঞ্চিত ভুক্তভোগি এক নারীর পক্ষে তার ভাই উপজেলার রিফাইতপুর গ্রামের আব্দুস সাত্তারের ছেলে মুন্না গত মঙ্গলবার (১৭ নভেম্বর) চেয়ারম্যান জামিরুল ইসলাম বাবুর বিরুদ্ধে কার্ড জালিয়াতি করে ভিজিডির চাল আত্মসাতের অভিযোগ দেন আদালতে। আদালতের বিচারক অভিযোগটি মামলা হিসেবে আমলে নিয়ে এজাহারভুক্ত করার জন্য দৌলতপুর থানার ওসিকে নির্দেশ দেন।

 

 

 

আদালত সুত্রে জানা যায়, দৌলতপুর উপজেলার রিফাইয়েতপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জামিরুল ইসলাম বাবু ওই ইউনিয়নের বাসিন্দা রুবিনা খাতুনের ভোটার আইডি কার্ড ব্যবহার করে তার (রুবিনা) নামে একটি ভিজিডি কার্ড তৈরী করেন। ওই চেয়ারম্যান রুবিনার ভিজিডি কার্ডের বিপরিতে ২০১৯-২০ অর্থ বছরে বরাদ্দ হওয়া সরকারী চাল আত্মসাত করেন। বিধবা রুবিনা এ ব্যাপারে কিছুই জানতেন না।

 

 

সম্প্রতি বিষয়টি জানাজানি হলে রুবিনা খাতুন স্থানীয় মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার অফিসে গিয়ে জানতে পারেন তার নামে ২০১৯-২০ অর্থ বছরের ভিজিডি কার্ড রয়েছে। সেই কার্ডে নিয়মিত চাল উত্তোলন হয়ে আসছে। তার কার্ড নম্বর ৫১।

 

পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।