শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের উন্নয়ন অব্যাহত রয়েছে – এমপি সরওয়ার জাহান বাদশাহ্

এনামুল হক রাসেল এনামুল হক রাসেল

সম্পাদক, দ্য বিডি রিপোর্ট ২৪ ডটকম

প্রকাশিত: ৩:১৩ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১, ২০২১
এমপি সরওয়ার জাহান বাদশাহ্

কুষ্টিয়া-১ দৌলতপুর আসনের এমপি এ্যাড. আ. কা. ম সরওয়ার জাহান বাদশাহ্ বলেছেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের উন্নয়ন অব্যাহত রয়েছে। গত ৪৫ বছরে দেশের যে উন্নয়ন হয়েছে তার চেয়েও বেশী উন্নয়ন হয়েছে গত দুই বছরে। আর সেটা সম্ভব হয়েছে বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সুযোগ্য নেতৃত্বে। দরিদ্র জনগোষ্ঠীর জন্য হাজার হাজার বয়স্ক ও বিধবা ভাতা দেওয়া হচ্ছে। দৌলতপুরের বিভিন্ন সড়ক নির্মান ও সংস্কার করা হচ্ছে, ব্রীজ নির্মান করা হচ্ছে, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভবন নির্মান করা হচ্ছে, চিলমারী ও রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়ন বাসীর ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ দেওয়া হচ্ছে যার উদ্বোধন হবে ৩ জানুয়ারী।

 

সংসদ সদস্য এ্যাড. আ. কা. ম. সরওয়ার জাহান বাদশাহ্্ এমপি নির্বাচিত হওয়ার দুই বছর পূর্তি অনুষ্ঠানের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

 

উপজেলার ফিলিপনগর পিএসএস মাধ্যমিক বিদ্যালয় চত্বরে গতকাল শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪টায় এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। বীর মুক্তিযোদ্ধা হায়দার আলীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন, কুষ্টিয়া-১ দৌলতপুর আসনের সংসদ সদস্য এ্যাড. আ. কা. ম. সরওয়ার জাহান বাদশাহ্।

 

 

বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী প্রচার সম্পাদক এ্যাড. হাসানুল আসকার হাসু, পিয়াপুর ইউপি চেয়ারম্যান আবু ইউসুফ লালু, ফিলিপনগর ইউপি চেয়ারম্যান একেএম ফজলুল হক কবিরাজ, সাবেক চেয়ারম্যান নঈমুদ্দিন সেন্টু, পিএম কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুল মান্নান, স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা ওরুশ কবিরাজ, শিপুল হাজী, মাহবুব মাষ্টার, যুবলীগ নেতা ওয়াসিম কবিরাজ ও এমপি পুত্র শাইখ আল জাহান শুভ্র সহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ। আলোচনা সভায় সাংসদের সহধর্মিনী মাহমুদা সিদ্দিকী, দৌলতপুর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সরদার তৌহিদুল ইসলাম, দৌলতপুর কলেজের অধ্যক্ষ মো. ছাদিকুজ্জামান খান সুমন, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সোনালী খাতুন আলেয়া, জেলা পরিষদের সদস্য মায়াবী রোমান্স মল্লিক সহ দৌলতপুর আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও আমন্ত্রিত সুধীজন উপস্থিত ছিলেন। আলোচনা সভা শেষে মনোজ্ঞ সংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করেন দেশ বরেন্য শিল্পিবৃন্দ।

পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।