চলচ্চিত্র পাড়ায় হঠাৎ আলোচনায় প্রযোজক সেলিম খান

এনামুল হক রাসেল এনামুল হক রাসেল

,সম্পাদক, দ্য বিডি রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১১:২২ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১২, ২০২০
প্রযোজক সেলিম খান

বিনোদন প্রতিবেদক: মিশা সওদাগর-জায়েদ খানকে বয়কট করা নিয়ে চলচ্চিত্রশিল্প যখন টালমাটাল তখনই দৃশ্যপটে চলে এলেন প্রযোজক সেলিম খান। তিনি চলচ্চিত্রের ১৮টি আন্ত:সংগঠনের বয়কট করা অভিনেতা জায়েদ খানকে নিয়ে ছয়টি ছবি নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছেন। গত শনিবার এফডিসিতে অনুষ্ঠিত ১৮টি সংগঠনের বৈঠকে এমনটাই বলা হয়েছে।

 

 

 

পরে পরিচালক সমিতি সূত্রে জানা গেছে, তিনি এই ছয়টি ছবি নিবন্ধনের জন্য আবেদনও করেছেন। তবে আবেদনে যেহেতু জায়েদ খানের নাম উল্লেখ করা হয়নি, সেহেতু সমিতি ছবিগুলোর অনুমোদন দিয়েছে। পরিচালক সমিতির একজন কর্মকর্তা বলেছেন, যদি ছবিগুলোতে জায়েদ খানকে নেওয়া হয় তখন তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া যাবে। এর আগে এই প্রযোজক কলকাতার দেবকে নিয়ে ১০টি ছবি নির্মাণ করার কথা বলেছেন। তাহলে এই নিয়ে তার ঘোষিত ছবির সংখ্যা দাঁড়ায় ১৬টিতে। এই বিপুল সংখ্যক ছবিতে কত টাকা লগ্নী হতে পারে তা সহজেই অনুমেয়। তবে ছবিগুলো একসঙ্গে হবে নাকি পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনা হাতে নেওয়া হয়েছে, সেটা অবশ্য বলা হয়নি। সেলিম খানের বর্তমান উদ্যোগ ১৮ সংগঠন সুনজরে দেখছেন না। বিশেষ করে সেলিম খানের নামের সঙ্গে জায়েদ খানের নাম জড়িয়ে যাওয়ার কারণে।

 

 

 

অনেকে মনে করছেন, জায়েদ খানের সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধে সেলিম খান পরোক্ষে চলচ্চিত্রশিল্পের নেতৃত্বের বিরুদ্ধে এক ধরনের চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছেন। আবার কেউ কেউ বলছেন, সেলিম খান যদি জায়েদ খানকে পরিহার করে ছবি নির্মাণের উদ্যোগ নেন তাহলে সেটা হবে চলচ্চিত্রের জন্য আশীর্বাদ। কারণ কোভিড মহামারীতে চলচ্চিত্রে এমনিতেই কেউ বিনিয়োগ করতে এগিয়ে আসছেন না। সেক্ষেত্রে সেলিম খানতো সকলের কাছ থেকে অভ্যর্থনা পেতেই পারেন। কাগজেপত্রে কোথাও জায়েদকে আনছেন না সেলিম খান।

 

 

 

শোনা যাচ্ছিল, জায়েদ খানকে কেন্দ্র করে আন্ত:সংগঠনগুলো চলচ্চিত্রশিল্পের সিদ্ধান্ত অগ্রাহ্য করার অভিযোগে নোটিশ পাঠানো হবে। কিন্তু সুযোগ সংগঠনগুলোর হাতে আদৌ আছে কিনা সেটা তারাই ভালো বলতে পারবেন। দৃশ্যত এখনো কিছু পাওয়া যায়নি।

পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।