কুষ্টিয়ায় মাদক মামলায়

দৌলতপুরের এক নারীর যাবজ্জীবন কারাদন্ড

এনামুল হক রাসেল এনামুল হক রাসেল

,সম্পাদক, দ্য বিডি রিপোর্ট

প্রকাশিত: ৮:২৪ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ১৬, ২০২০

নিজস্ব প্রতিনিধি: কুষ্টিয়া দৌলতপুর থানার মাদক (হেরোইন) মামলায় গৃহবধু এক নারীর যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও ৫০হাজার টাকা জরিমানা আদেশ দিয়েছেন আদালত। বৃহষ্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টায় কুষ্টিয়া নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ আদালতের বিচারক মুন্সী মোঃ মশিয়ার রহমান জনাকীর্ণ আদালতে আসামীর উপস্থিতিতে এই রায় ঘোষনা করেন।

দন্ডপ্রাপ্ত আসামী হলেন- দৌলতপুর উপজেলার মহিষকুন্ডি পাকুরিয়া গ্রামের মৃত: আলম মন্ডলের কন্যা ও গোলাম মোস্তফা মোল্লার স্ত্রী মালেকা খাতুন (৪২)।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৫ সালের ৬ এপ্রিল বেলা ১১টায় উপজেলার মহিষকুন্ডি পাকুরিয়া এলাকায় মাদক বিরোধী অভিযানকালে আসামী মালেকার বসত বাড়ি ঘেরাও করলে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে কয়েকজন লোক পালিয়ে যায়। এসময় মালেকা খাতুনকে আটক পূর্বক তার শয়ন ঘরের বিছানা থেকে পলিথিনে মোড়ানো ৫০গ্রাম হেরোইন উদ্ধার করে পুলিশ। এই এঘটনায় দৌলতপুর থানার এস আই মামুনুর রশিদ ১৯৯০ সালের মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনের দ:বি: ১৯(১)র ১(খ) ধারায় মামলা দায়ের ও উদ্ধারকৃত আসামীসহ আদালতে সৌপর্দ করেন। মামলাটি তদন্ত শেষে ২০১৫ সালের ২৪মে আদালতে চার্জশীট দেয় পুলিশ।

কুষ্টিয়া নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ আদালতের সরকারী কৌশুলী(পিপি) আব্দুল হালিম সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, দৌলতপুর থানার মাদক মামলাটিতে আসামীর বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগে চার্জ গঠন পূর্বক দীর্ঘ স্বাক্ষ্য শুনানী শেষে মালেকা খাতুনের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সন্দেহাতীত প্রমানিত হওয়ায় তাকে যাবজ্জীবন কারাদন্ডসহ ৫০হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছর সাজার আদেশ দিয়েছেন বিজ্ঞ আদালত।

পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।