কুষ্টিয়ায় পুলিশ সদস্য করোনায় আক্রান্ত, কাকিলাদহ পুলিশ ফাঁড়ি লকডাউন

এনামুল হক রাসেল এনামুল হক রাসেল

,সম্পাদক, দ্য বিডি রিপোর্ট

প্রকাশিত: ৬:১৮ অপরাহ্ণ, মে ২৯, ২০২০

নিজস্ব প্রতিনিধি: কুষ্টিয়ায় পুলিশ ফাঁড়ির এক সদস্য করোনা পজেটিভ হওয়ায় পুরো পুলিশ ফাঁড়ি লকডাউন করেছে প্রশাসন। শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টায় জেলার মিরপুর উপজেলার কাকিলাদহ পুলিশ ফাঁড়িটি লকডাউন করা হয়।

 

 

কাকিলাদহ পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই আতিকুর রহমান জানান, করোনা আক্রান্ত ঐ পুলিশ সদস্যের বাড়ী ঝিনাইদহ জেলায়। তিনি করোনাকালে এই পুলিশ ফাঁড়িতেই কর্মরত ছিলেন। তিনি জেলার বাইরে যাননি। স্থানীয় ভাবেই এই করোনা সংক্রমনের শিকার হয়েছে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

 

 

 

মিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) ডাঃ রাশেদ মাহমুদ রোকনুজ্জামান জানান, গত ২৬ তারিখে ঠান্ডা-জ্বরসহ করোনা উপসর্গ নিয়ে ঐ পুলিশ সদস্য মিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হন। তিনি কুষ্টিয়ার একটি বেসরকারী হাসপাতাল থেকে টেস্ট করে ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে এখানে ভর্তি হন। যেহেতেু করোনা উপসর্গ রয়েছে তাই আমরা গত ২৭ মে তার নমুনা সংগ্রহ করে কুষ্টিয়া মেডিকেলের পিসিআর ল্যাবে প্রেরণ করা হয়। শুক্রবার (২৯ মে) সন্ধ্যা ৭টায় নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে পজেটিভ সনাক্ত জানানো হয়েছে। তিনি বর্তমানে মিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আইসলেশন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন।

 

 

মিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম জানান, যেহেতু ঐ পুলিশ সদস্য স্থানীয় ভাবেই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। তাই পুরো পুলিশ ফাঁড়িকে আমরা শুক্রবার (২৯ মে) রাত সাড়ে ৮টায় লকডাউন করেছি।

 

 

কুষ্টিয়ার সিভিল সার্জন ডা. এইচ এম আনোয়ারুল ইসলাম জানান, কুষ্টিয়া জেলায় শুক্রবার সন্ধা পর্যন্ত ৫৭ জন কোভিড রোগী সনাক্ত হয়েছে। বহিরাগত বাদে জেলায় এর মধ্যে দৌলতপুরে ১৯, ভেড়ামারায় ৬, মিরপুরে ১০, কুষ্টিয়া সদরে ৭, কুমারখালীতে ১১, খোকসায় ৪ জন আক্রান্ত হিসেবে সনাক্ত হয়েছেন। আক্রান্তদের মধ্যে পুরুষ ৪৩ জন এবং নারী ১৪ জন। এদের মধ্যে বর্তমানে হোম আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন আছেন ৩৩ জন রোগী।

পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।