কুষ্টিয়ায় নির্বাচনী শো-ডাউনে মোটর সাইকেল চাপায় বৃদ্ধার মৃত্যু

এনামুল হক রাসেল এনামুল হক রাসেল

সম্পাদক, দ্য বিডি রিপোর্ট ২৪ ডটকম

প্রকাশিত: ৯:০০ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২১

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি: কুষ্টিয়া মিরপুর উপজেলার ৩নং তালবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের আসন্ন নির্বাচনে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীর নির্বাচনী মটরসাইকেল শো-ডাউনের চাপায় শহর আলী সেখ(৭৫) নামের এক বৃদ্ধের মুত্যুর অভিযোগ উঠেছে।

 

 

শুক্রবার সন্ধায় কুষ্টিয়া-ঈশ^রদী মহাসড়কস্থ উপজলার রানাখড়িয়া গ্রামে রাস্তা পার হওয়ার সময় একসঙ্গে কয়েক’শ মটরসাইকেল শো-ডাউনের মধ্যে চাপা পড়ে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হওয়া শহর আলী স্থানীয় বাসিন্দা মৃত: ফকির সেখের ছেলে।

 

স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার বিকেলে তালবাড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হান্নান মন্ডলের কয়েক’শ মটরসাইকেলসহ বিশাল নির্বাচনী শো-ডাউন বের হয়। এসময় রাস্তা পার হওয়ার সময় ঘটনাস্থল দিয়ে ওই মটর সাইকেলের শো-ডাউন অতিক্রম করতে গিয়ে শহর আলীকে ধাক্কা দেয়। এতে শহর আলী মাটিতে পড়ে গেলে বে-পরোয়া গতি আরও কয়েকটি মটর সাইকেলও তার উপর দিয়ে চলে যায়। মরটসাইকেল বহর চলে যাওয়ার পর স্থানীয়রা কাছে গিয়ে শহর আলীর নিথর দেহ পড়ে থাকতে দেখে তাকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তৃব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।

 

এবিষয়ে হাইয়ে পুলিশের টিআই জুলহাস উদ্দিনের সাথে মুঠোফোনে আলাপকালে তিনি জানান, উপজেলার তালবাড়ীয়া এলাকায় একটি সড়ক দূঘটনায় শহর আলী শেখ নামে একজনের মৃত্যু হয়েছে। শোডাউনের মোটর সাইকেলের ধাক্কায় এই ঘটনা ঘটেছে কি না তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। তবে সেখান থেকে পরিত্যাক্ত একটি রেজি: বিহীন মোটর সাইকেল উদ্ধার করলেও তার চালককে পাওয়া যায়নি।

 

 

শনিবার দুপুরে মুঠোফোনের আলাপকালে মিরপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি তদন্ত) শুভ্র প্রকাশ দাস জানান, এঘটনায় এখনও কেউ থানায় কোন অভিযোগ বা মামলা নিয়ে আসেনি।

 

 

তালবাড়ীয়া ইউপি চেয়ারম্যানের সমর্থনে বের হওয়া মটরসাইকেল শো-ডাউন বিষয়ে জানতে চাইলে বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান হান্নান মন্ডল বলেন, ওটা আসলে আমার শো-ডাউনের মধ্যে এসে বাইরের কোন মটরসাইকেল মেরে দিয়ে চলে গেছে। এটাকে বিরোধীপক্ষ আমার শো-ডাউনের উপর দায় চাপাচ্ছে। এই মৃত্যুর সাথে আমার শো-ডাউনের কোন সম্পর্ক নেই।

 

 

এবিষয়ে কুষ্টিয়ার সিনিয়র জেলা নির্বাচন অফিসার আনিছুর রহমান বলেন, যেহেতু ইউপি নির্বাচন বিষয়ে নির্বাচন কমিশন এখনও কোন সিদ্ধান্ত জানান নি। সেকারণে নির্বাচনে সম্ভাব্য প্রার্থী হওয়ার আশায় যারা শো-ডাউন করতে গিয়ে নানা জটিলতা সৃষ্টি করছেন তা নির্বাচনী আচরণ বিধি অনুমোদন করেনা। প্রার্থী হওয়ার আশা যে কেউ করতেই পারেন; সেটা করতে গিয়ে যেন আইন শৃংখলা ভঙ্গের কারণ না ঘটে।

পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।