কুষ্টিয়ায় ঘূর্নিঝড়ে সহায় সম্বলহীন আমিরুন্নেছাকে নতুন বাড়ি দিলেন পুলিশ সুপার এসএম তানভীর আরাফাত

এনামুল হক রাসেল এনামুল হক রাসেল

,সম্পাদক, দ্য বিডি রিপোর্ট

প্রকাশিত: ৩:২৯ অপরাহ্ণ, জুলাই ১, ২০২০

মোঃ শহিদুল্লাহ্ : মানুষ মানুষকে ভালবাসবে এটাই মানুষের জীবনের সুকোমল প্রবৃত্তি, কিন্তু মানুষের মধ্যে যখন পশুত্ব জাগ্রত হয় তখন এই মানুষই মানুষকে অত্যাচার করে অবহেলা করে সম্পত্তি গ্রাস করে ভিটেমাটি ছাড়া করে; তখনই নির্যাতিত মানুষের বুক থেকে বেরিয়ে আসে দীর্ঘশ্বাস আর শিল্পী কন্ঠ গেয়ে উঠে “মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য; একটু সহানুভূতি কি মানুষ পেতে পারে না ও বন্ধু”৷

 

 

 

হ্যাঁ সহানুভূতি মানুষ পেতে পারে, আর এমন সহানুভূতি যারা দেন তারা পৃথিবীতে মানুষরুপী ফেরেশতা৷ এ সমস্ত মানুষদের কারণেই আজও ফুলের বাগানে পুষ্পমঞ্জুরি ফুটে উঠে তার সৌরভ ছড়ায়, গাছে গাছে পাখিরা সীমধুর কন্ঠে কুহু কুজন করে; পূব আকাশে সূর্য ওঠে, সন্ধ্যাকাশে ওঠে সন্ধ্যাতারা৷ এমনই এক মানবতার প্রতীক ফেরেশতা তুল্য মানুষ কুষ্টিয়া জেলার জননন্দিত সুযোগ্য পুলিশ সুপার জনাব এস এম তানভীর আরাফাত পিপিএম (বার) মহোদয়৷ সম্প্রতি দেশের উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া আম্পান ঘূর্ণিঝড়ের কথা আমরা সবাই জানি৷ এ ঘূর্ণিঝড়ে অনেক মানুষের ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত মানুষ অসহায় হয়ে পড়েছে৷

 

 

 

 

২০ মে ২০২০আম্ফান ঘূর্ণিঝড়ে কুষ্টিয়া হাটশহরিপুর ইউনিয়নের শালদাহ গ্রামের বিধবা নিঃসন্তান আমিরুন্নেছার সম্বল এক টুকরো ঘর বিধ্বস্ত হয়েছিল ৷তারপর থেকে অসহায় অামিরুন্নেছা খোলা আকাশের নিচে বসবাস করছেন এমন খবরের ফেসবুকে ভিডিও চারিদিকে ছড়িয়ে গেলে(VIRAL)হলে তা কুষ্টিয়া জেলার পুলিশ সুপার জনাব এস এম তানভীর আরাফাত পিপিএম (বার) এর নজরে আসলে তিনি দেরি না করে অসহায়-সহায় সম্বলহীন বিধবা আমিরুন্নেছার বাড়ীতে গিয়ে ত্রাণ বাবদ নগদ এক লক্ষ টাকা প্রদান করেন এবং তার মাথা গোঁজার ঠাঁই তার বাড়ি নির্মাণ করে তার মাথা গোজার ঠাই ফিরিয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন। আজ ১ জুলাই, বুধবার সকাল ১০টার সময় তিনি নিজে বিধবা নিঃসন্তান আমিরুন্নেছার কাছে তার প্রতিশ্রুত ঘরটি নির্মাণ শেষে তার হাতে তুলে দিয়ে তার মাথা গোঁজার ঠাইটুকু ফিরিয়ে দিয়ে মানবিকতার এক নতুন দৃষ্টান্ত স্হাপন করেন৷ নির্মাণকৃত ঘরটি ফিতা কেটে উদ্বোধন শেষে করোনা দূরকরণে আল্লাহর রহমত চেয়ে মহান অাল্লাহ পাকের কাছে দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। এ সময় পুলিশ সুপার মহোদয়ের সাথে

 

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জনাব মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ(সদর) জনাব মোঃ আজাদ রহমান, এবং অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল;কুষ্টিয়া) জনাব আতিকুল ইসলাম, এবং হাটশ হরিপুরের ইউনিয়ন চেয়ারম্যান, উপস্থিত থেকে অনুষ্ঠানের অাঙ্গিক বর্ধণে ভূমিকা রাখেন৷

পুলিশ সুপার জনাব এস.এম তানভীর আরাফাত পিপিএম (বার) মহোদয় সেখানে বলেন “পুলিশ জনগনের বন্ধু। বিধবা নিঃসন্তান আমিরুন্নেছার শেষ সম্বল এক টুকরো ঘর নতুন করে গড়ে দিতে পেরে তিনি স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলতে পারছি, কারন অসহায় মানুষরা ভালো না থাকলে অামাদের ভালো থাকার কোন অর্থই হয়না”৷
পুলিশ সুপার মহোদয়ের এ ধরনের মানবিক কাজ আজ কুষ্টিয়াবাসীর সবার মুখে মুখে ঘুরে ফিরছে৷

 

লেখকঃ শ্রেষ্ট অফিসার হিসেবে ডিআইজি রিওয়ার্ড প্রাপ্ত সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার(অবঃ),লেখক ও গবেষক৷

পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।