কুষ্টিয়ায় চলছে কঠোর লকডাউন তৎপর প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধি

এনামুল হক রাসেল এনামুল হক রাসেল

সম্পাদক, দ্য বিডি রিপোর্ট ২৪ ডটকম

প্রকাশিত: ১১:৪৯ অপরাহ্ণ, জুন ২২, ২০২১

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি: গত রোববার দিবাগত রাত ১২টা ১ মিনিট থেকে পুরো জেলায় চলছে কঠোর লকডাউন।মানুষকে ঘরে রাখতে সোমবার ভোর থেকেই মাঠে তৎপর রয়েছে জেলা প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা।

 

আজ সকাল থেকেই কুষ্টিয়া শহরের প্রবেশমুখে আটটি স্থানে পুলিশ সদস্যদের কড়া পাহারা চলছে। জেলায় সব ধরনের (অত জরুরি সেবা বাদে) যানবাহন বন্ধ রয়েছে। মাঠে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান চালাচ্ছেন।

 

 

লকডাউন উপেক্ষা করে বিভিন্ন অজুহাতে যারা বাইরে বের হচ্ছেন তাদের ঘরে ফেরাতে কঠোর ব্যবস্থা নিতে কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার খাইরুল আলম নিজেই রাস্তায় নেমেছিলেন।

 

 

কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার খাইরুল আলম বলেন,যারা অহেতুক বাইরে বের হচ্ছেন মাথায় রাখুন, কুষ্টিয়ার জনগনকে বাঁচাতে কঠোর থেকে কঠোর অবস্থানে রয়েছে পুলিশ।

 

কুষ্টিয়া সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান আতা বলেন, কুষ্টিয়া সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে সাথে নিয়ে কুষ্টিয়া শহরের চলমান কঠোর লকডাউন অমান্য করে যারা দোকান খোলা রেখেছে এবং যানবাহন চালাচ্ছে তাদেরকে আইন অমান্য করার দায়ে জরিমানা আদায় করা হয়। সেই সথে বিধি নিষেধ মানতে নির্দেশ দেন কুষ্টিয়া সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার।

 

 

কুষ্টিয়া সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাধন কুমার বিশ্বাস,বলেন, বিধি নিষেধ মানতে নির্দেশ দেওয়াসহ মানুষের মধ্যে সচেতন বৃদ্ধি এবং জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম স্যারের নির্দেশে কুষ্টিয়া শহরের চলমান কঠোর লকডাউন যাতে মানুষ নিয়ম মেনে চলে এজ্ন্য কাজ করে যাচ্ছি।

 

 

কুষ্টিয়া জেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি ও জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম বলেন, ছয়জন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, এসি ল্যান্ডসহ জেলা প্রশাসনের ম্যাজিস্ট্রেটদের সমন্বয়ে একাধিক টিম মাঠেই আছে। করোনা প্রতিরোধের বিষয়টিকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে কাজ করা হচ্ছে। জেলার মানুষের কল্যাণের জন্য যা যা প্রয়োজন, তার সবই করা হচ্ছে।

পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।